Biday hajj er Vashon

শুক্রবার ৯ জিলহজ্ব ১০ হিজরি সনে হজ্জের সময় আরাফা ময়দানে দুপুরের পর হযরত মুহাম্মদ (স) লক্ষাধিক সাহাবীর সমাবেশে এ ঐতিহাসিক ভাষন দেন হামদ ও সানার পর তিনি বলেন:-

• হে মানুষ!
তোমরা আমার কথা শোনো.এর পর এই স্থানে তোমাদের সাথে আর একত্রিত হতে পারবো কিনা জানিনা!

••হে মানুষ
আল্লাহ বলেন.হে মানবজাতি তোমাদেরকে আমি এক পুরুষ ও এক নারী থেকে সৃষ্টি করেছি,এবং তোমাদেরকে সমাজ ও গোত্রে ভাগ করে দিয়েছি. যেন তোমরা পরস্পরের পরিচয় জানতে পার,অতএব শুনে রাখো মানুষে মানুষে কোন ভেদাভেদ নেই ।আরবের ওপর কোনো অনারবের_অনারবের উপর কোনো আরবের শ্রেষ্ঠত্ব নেই । তেমনি সাদার উপর কালোর বা কালোর উপর সাদার কোনো শ্রেষ্ঠত্ব নেই । তোমাদের মধ্যে সেই ব্যক্তিই আল্লাহর কাছে সবচেয়ে বেশী সম্মান ও মর্যাদার অধিকারী,যে আল্লাহকে ভালবাসে।

•••হে মানুষ !
শুনে রাখো অন্ধকার যুগের সকল বিষয় ও প্রথা আজ থেকে বিলুপ্ত হলো.জাহিলি যুগের রক্তের দাবিও রহিত করা হলো।

••••হে মানুষ !
শুনে রাখো,অপরাধের দায়িত্ব কেবল অপরাধীর ওপরই বর্তায় । পিতা তার পুত্রের জন্যে আর পুত্র তার পিতার অপরাধের জন্য দায়ী নয়।

•••••হে মানুষ!
তোমাদের রক্ত তোমাদের সম্মান,তোমাদের সম্পদ পরস্পরের জন্য চিরস্থায়ী ভাবে হারাম অর্থাৎ পবিত্র ও নিরাপদ করা হলো যেমন আজকের এই মাস এই শহর সকলের জন্য পবিত্র ও নিরাপদ।

••••••হে মানুষ!
তোমরা ঈর্ষা ও হিংসা-বিদ্বেষ থেকে দুরে থাকবে ঈর্ষা ও হিংসা মানুষের সকল সৎগুনকে ধ্বংস করে।

•••••••হে মানুষ!
নারীদের সম্পর্কে আমি তোমাদের সতর্ক করে দিচ্ছি,তাদের সাথে নিষ্ঠুর আচরণ করোনা, তাদের উপর যেমন তোমাদের অধিকার রয়েছে তেমনি তোমাদের উপর তাদেরও অধিকার রয়েছে সুতরাং তাদের কল্যাণের দিকে সবসময় খেয়াল রেখো।

••••••••হে মানুষ!
অধীনস্থদের সম্পর্কে সতর্ক হও.তোমরা নিজেরা যা খাবে তাদেরও তা খাওয়াবে.নিজেরা যা পরবে তাদেরও তা পরাবে,শ্রমিকের শরীরের ঘাম শুকানোর আগেই তার মজুরি পরিশোধ করবে ।

•••••••••হে মানুষ!
বিশ্বাসী সেই ব্যক্তি যার হাত ও মুখ থেকে অন্যের সম্মান,ধন ও প্রাণ নিরাপদ, সে নিজের জন্য যা পছন্দ করে অন্যের জন্যেও তাই পছন্দ করে ।

••••••••••হে মানুষ!
বিশ্বাসীরা পরস্পরের ভাই,সাবধান ! তোমরা একজন আরেকজনকে হত্যা করার মতো কুফরি কাজে লিপ্ত হয়ো না।

•••••••••••হে মানুষ!
শুনে রাখো আজ হতে বংশগত শ্রেষ্ঠত্ব বা কৌলিনপ্রথা বিলুপ্ত করা হলো কুলীন বা শ্রেষ্ঠ সেই যে বিশ্বাসী ও মানুষের উপকার করে।

••••••••••••হে মানুষ!
ঋণ অবশ্যই ফেরত দিতে হবে.বিশ্বস্ততার সাথে প্রত্যেকের আমানত রক্ষা করতে হবে,কারো সম্পত্তি সে যদি স্বেচ্ছায় না দেয়,তবে তা অপর কারো জন্য হালাল নয় । তোমরা কেউ দুর্বলের উপর অবিচার করো না।

•••••••••••••হে মানুষ!
জ্ঞানীর কলমের কালি শহীদের রক্তের চেয়েও মূল্যবান.জ্ঞান অর্জন প্রত্যেক নর-নারীর জন্য ফরয-কারন জ্ঞান মানুষকে সঠিক পথ দেখায় । জ্ঞান অর্জনের জন্য প্রয়োজনে তোমরা চীনে যাও।

••••••••••••••হে মানুষ!
তোমরা তোমাদের প্রভুর ইবাদত করবে,নামায কায়েম করবে.যাকাত আদায় করবে,রোজা রাখবে হজ্ব করবে আর সংঘবদ্ধ ভাবে নেতাকে অনুসরণ করবে তাহলে তোমরা জান্নাতে দাখিল হতে পারবে।

•••••••••••••••হে মানুষ!
শুনে রাখো একজন কুশ্রী-কদাকার ব্যক্তিও যদি তোমাদের নেতা মনোনীত হয়.যতদিন পর্যন্ত সে আল্লাহর কিতাব অনুসারে তোমাদের পরিচালিত করবে,ততদিন পর্যন্ত তার আনুগত্য করা তোমাদের অবশ্য কর্তব্য।

••••••••••••••••হে মানুষ !
শুনে রাখো আমার পর আর কোনো নবী নেই । হে মানুষ আমি তোমাদের কাছে দুটি আলোকবর্তিকা রেখে যাচ্ছি.যতদিন তোমরা এ দুটো অনুসরণ করবে ততদিন তোমরা সত্য পথে থাকবে এর একটি হলো-আল্লাহর কিতাব.দ্বিতীয়টি হলো-আমার জীবন-দৃষ্টান্ত।

•••••••••••••••••হে মানুষ!
তোমরা কখনোই ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করো না- কারন অতীতে বহু জাতি ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ির কারনে ধ্বংস হয়ে গেছে।

••••••••••••••••••হে মানুষ!
প্রত্যেককেই শেষ বিচারের দিনে সকল কাজের হিসেব দিতে হবে । অতএব, সাবধান হও।

•••••••••••••••••••হে মানুষ!
তোমরা যারা এখানে হাজির আছো,আমার এই বাণীকে সবার কাছে পৌঁছে দিও

{এরপর তিনি জনতার উদ্দেশ্যে জিজ্ঞেস করলেন,হে মানুষ আমি কি তোমাদের কাছে আল্লাহর বাণী পৌঁছে দিয়েছি,সকলে সমস্বরে জবাব দিলো : হ্যাঁ এরপর নবীজী (স:) বললেন হে আল্লাহ তুমি সাক্ষী থাকো! আমি আমার সকল দায়িত্ব পালন করেছি }

আমিন…

• হে মানুষ!
তোমরা আমার কথা শোনো.এর পর এই স্থানে তোমাদের সাথে আর একত্রিত হতে পারবো কিনা জানিনা!

••হে মানুষ
আল্লাহ বলেন.হে মানবজাতি তোমাদেরকে আমি এক পুরুষ ও এক নারী থেকে সৃষ্টি করেছি,এবং তোমাদেরকে সমাজ ও গোত্রে ভাগ করে দিয়েছি. যেন তোমরা পরস্পরের পরিচয় জানতে পার,অতএব শুনে রাখো মানুষে মানুষে কোন ভেদাভেদ নেই ।আরবের ওপর কোনো অনারবের_অনারবের উপর কোনো আরবের শ্রেষ্ঠত্ব নেই । তেমনি সাদার উপর কালোর বা কালোর উপর সাদার কোনো শ্রেষ্ঠত্ব নেই । তোমাদের মধ্যে সেই ব্যক্তিই আল্লাহর কাছে সবচেয়ে বেশী সম্মান ও মর্যাদার অধিকারী,যে আল্লাহকে ভালবাসে।

•••হে মানুষ !
শুনে রাখো অন্ধকার যুগের সকল বিষয় ও প্রথা আজ থেকে বিলুপ্ত হলো.জাহিলি যুগের রক্তের দাবিও রহিত করা হলো।

••••হে মানুষ !
শুনে রাখো,অপরাধের দায়িত্ব কেবল অপরাধীর ওপরই বর্তায় । পিতা তার পুত্রের জন্যে আর পুত্র তার পিতার অপরাধের জন্য দায়ী নয়।

•••••হে মানুষ!
তোমাদের রক্ত তোমাদের সম্মান,তোমাদের সম্পদ পরস্পরের জন্য চিরস্থায়ী ভাবে হারাম অর্থাৎ পবিত্র ও নিরাপদ করা হলো যেমন আজকের এই মাস এই শহর সকলের জন্য পবিত্র ও নিরাপদ।

••••••হে মানুষ!
তোমরা ঈর্ষা ও হিংসা-বিদ্বেষ থেকে দুরে থাকবে ঈর্ষা ও হিংসা মানুষের সকল সৎগুনকে ধ্বংস করে।

•••••••হে মানুষ!
নারীদের সম্পর্কে আমি তোমাদের সতর্ক করে দিচ্ছি,তাদের সাথে নিষ্ঠুর আচরণ করোনা, তাদের উপর যেমন তোমাদের অধিকার রয়েছে তেমনি তোমাদের উপর তাদেরও অধিকার রয়েছে সুতরাং তাদের কল্যাণের দিকে সবসময় খেয়াল রেখো।

••••••••হে মানুষ!
অধীনস্থদের সম্পর্কে সতর্ক হও.তোমরা নিজেরা যা খাবে তাদেরও তা খাওয়াবে.নিজেরা যা পরবে তাদেরও তা পরাবে,শ্রমিকের শরীরের ঘাম শুকানোর আগেই তার মজুরি পরিশোধ করবে ।

•••••••••হে মানুষ!
বিশ্বাসী সেই ব্যক্তি যার হাত ও মুখ থেকে অন্যের সম্মান,ধন ও প্রাণ নিরাপদ, সে নিজের জন্য যা পছন্দ করে অন্যের জন্যেও তাই পছন্দ করে ।

••••••••••হে মানুষ!
বিশ্বাসীরা পরস্পরের ভাই,সাবধান ! তোমরা একজন আরেকজনকে হত্যা করার মতো কুফরি কাজে লিপ্ত হয়ো না।

•••••••••••হে মানুষ!
শুনে রাখো আজ হতে বংশগত শ্রেষ্ঠত্ব বা কৌলিনপ্রথা বিলুপ্ত করা হলো কুলীন বা শ্রেষ্ঠ সেই যে বিশ্বাসী ও মানুষের উপকার করে।

••••••••••••হে মানুষ!
ঋণ অবশ্যই ফেরত দিতে হবে.বিশ্বস্ততার সাথে প্রত্যেকের আমানত রক্ষা করতে হবে,কারো সম্পত্তি সে যদি স্বেচ্ছায় না দেয়,তবে তা অপর কারো জন্য হালাল নয় । তোমরা কেউ দুর্বলের উপর অবিচার করো না।

•••••••••••••হে মানুষ!
জ্ঞানীর কলমের কালি শহীদের রক্তের চেয়েও মূল্যবান.জ্ঞান অর্জন প্রত্যেক নর-নারীর জন্য ফরয-কারন জ্ঞান মানুষকে সঠিক পথ দেখায় । জ্ঞান অর্জনের জন্য প্রয়োজনে তোমরা চীনে যাও।

••••••••••••••হে মানুষ!
তোমরা তোমাদের প্রভুর ইবাদত করবে,নামায কায়েম করবে.যাকাত আদায় করবে,রোজা রাখবে হজ্ব করবে আর সংঘবদ্ধ ভাবে নেতাকে অনুসরণ করবে তাহলে তোমরা জান্নাতে দাখিল হতে পারবে।

•••••••••••••••হে মানুষ!
শুনে রাখো একজন কুশ্রী-কদাকার ব্যক্তিও যদি তোমাদের নেতা মনোনীত হয়.যতদিন পর্যন্ত সে আল্লাহর কিতাব অনুসারে তোমাদের পরিচালিত করবে,ততদিন পর্যন্ত তার আনুগত্য করা তোমাদের অবশ্য কর্তব্য।

••••••••••••••••হে মানুষ !
শুনে রাখো আমার পর আর কোনো নবী নেই । হে মানুষ আমি তোমাদের কাছে দুটি আলোকবর্তিকা রেখে যাচ্ছি.যতদিন তোমরা এ দুটো অনুসরণ করবে ততদিন তোমরা সত্য পথে থাকবে এর একটি হলো-আল্লাহর কিতাব.দ্বিতীয়টি হলো-আমার জীবন-দৃষ্টান্ত।

•••••••••••••••••হে মানুষ!
তোমরা কখনোই ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করো না- কারন অতীতে বহু জাতি ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ির কারনে ধ্বংস হয়ে গেছে।

••••••••••••••••••হে মানুষ!
প্রত্যেককেই শেষ বিচারের দিনে সকল কাজের হিসেব দিতে হবে । অতএব, সাবধান হও।

•••••••••••••••••••হে মানুষ!
তোমরা যারা এখানে হাজির আছো,আমার এই বাণীকে সবার কাছে পৌঁছে দিও

{এরপর তিনি জনতার উদ্দেশ্যে জিজ্ঞেস করলেন,হে মানুষ আমি কি তোমাদের কাছে আল্লাহর বাণী পৌঁছে দিয়েছি,সকলে সমস্বরে জবাব দিলো : হ্যাঁ এরপর নবীজী (স:) বললেন হে আল্লাহ তুমি সাক্ষী থাকো! আমি আমার সকল দায়িত্ব পালন করেছি }

আমিন…

Related Method

Biday hajj er Vashon

• হে মানুষ! তোমরা আমার কথা শোনো.এর পর এই স্থানে তোমাদের সাথে আর একত্রিত হতে পারবো কিনা জানিনা! ••হে মানুষ আল্লাহ বলেন.হে মানবজাতি তোমাদেরকে আমি এক পুরুষ ও এক নারী থেকে সৃষ্টি করেছি,এবং তোমাদেরকে সমাজ ও গোত্রে ভাগ করে দিয়েছি. যেন তোমরা পরস্পরের পরিচয় জানতে পার,অতএব...

কেয়ামতের ১৩১টি ছোট আলামত

১. রাসুলুল্লাহ (সা.) এর আগমন। বোখারি; ২. তাঁর ওফাত। বোখারি; ৩. তাঁর আঙুলের ইশারায় চন্দ্র দ্বিখন্ডিত হওয়া। সূরা কামার ১-২; ৪. সাহাবাগণের বিদায়। মুসলিম; ৫. বায়তুল মোকাদ্দাস বিজয়। বোখারি; ৬. দুইটি প্রলয়ঙ্করী মহামারী (যা ১৬ ও ২৫ হিজরিতে হয়েছিল।) বোখারি; ৭. নানা ধরনের...

❤️—জান্নাতের বিবরন—❤️

❤️--জান্নাতের বিবরন--❤️ জান্নাতে কি হবে?__________.❤️আল্লাহ তাআলা বলেন,❤️.নিশ্চয় পরহেযগাররা বাস করবে উদ্যান ও প্রস্রবণসমূহে । (তাদেরকে বলা হবে,) তোমরা শান্তি ও নিরাপওার সাথে তাতে প্রবেশ কর। আমি তাদের অন্তরে যে ঈর্ষা থাকবে তা দূর করে দেব; তারা ভ্রাতৃভাবে পরস্পর...

মহানবী (সা.) এর ২১৮ টি মহামূল্যবান বাণী

❤️❤️❤️❤️ . হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আল্লাহর সর্বশেষ নবী। দুনিয়াতে যারা তাঁর দেখানো পথে চলবে, পরকালে তারাই জান্নাতে যাবে। তারাই জাহান্নাম থেকে মুক্তি পাবে। আমরা তাঁর উম্মত বা অনুসারী দল। আমরা তাঁর দেখানো পথে চলি। সঠিক পথ পাবার জন্যে তিনি আমাদের কাছে...

কেয়ামতের ১৩১টি ছোট আলামত

কেয়ামতের ১৩১টি ছোট আলামত

বড় ও ছোট আলামত মিলিয়ে কেয়ামতের ১৪১টি আলামত বর্ণনা করা হলো, কেয়ামতের ১৩১টি ছোট আলামত নিম্নরুপ:

১.
রাসুলুল্লাহ (সা.) এর আগমন। বোখারি;
২.
তাঁর ওফাত। বোখারি;
৩.
তাঁর আঙুলের ইশারায় চন্দ্র দ্বিখন্ডিত হওয়া। সূরা কামার ১-২;
৪.
সাহাবাগণের বিদায়। মুসলিম;
৫.
বায়তুল মোকাদ্দাস বিজয়। বোখারি;
৬.
দুইটি প্রলয়ঙ্করী মহামারী (যা ১৬ ও ২৫ হিজরিতে হয়েছিল।) বোখারি;
৭.
নানা ধরনের ফিতনা প্রকাশ ঘটবে। মুসলিম;
৮.
আকাশ মিডিয়ার বিস্তার। ইবনে আবি শায়বা;
৯.
সিফফিনের যুদ্ধ (যা আলী ও মুয়াবিয়া (রা.) এর মাঝে ঘটেছিল)। বোখারি ও মুসলিম;
১০.
খারেজিদের প্রকাশ। বোখারি;
১১.
৩০জন নবুয়তের দাবিদার, মহামিথ্যুকের প্রকাশ। বোখারি;
১২.
সুখ-শৌখিনতা বৃদ্ধি ও দূর-দূরান্ত পাড়ি দেয়া সহজ হয়ে যাবে। আহমাদ;
১৩.
হেজাজ থেকে আগ্নেয়গিরি প্রকাশ। বোখারি;
১৪.
মুসলমানদের সঙ্গে তুর্কিদের যুদ্ধ। (যা সাহাবিযুগে হয়েছিল) বোখারি;
১৫.
জুলুমবাজ লোকেরা ছড়ি ও চামড়ার বেত দিয়ে নিরীহ মানুষকে প্রহার করবে। আহমাদ;
১৬.
খুন বেড়ে যাবে। মুসলিম;
১৭.
অন্তর থেকে আমানত উঠে যাবে। বোখারি;
১৮.
ইহুদিদের অনুকরণের প্রবণতা বেড়ে যাবে। বোখারি;
১৯.
ক্রীতদাসীর গর্ভ থেকে মালিকের জন্ম হবে। মুসলিম;
২০.
স্বল্পবসনা নারীর সংখ্যা বেড়ে যাবে। মুসলিম;
২১.
ছাগলের রাখাল, নগ্নপদের লোকেরা ও বস্ত্রবঞ্চিতরা অট্টালিকা হাঁকাবে। মুসলিম;
২২.
চেনাজানা ও বিশিষ্ট লোকদের সালাম দেয়ার প্রচলন হবে। ইবনে খুজাইমা;
২৩.
ব্যবসার ব্যাপক বিস্তার ঘটবে। আহমাদ;
২৪.
স্বামীর ব্যবসায় (শেয়ার হিসেবে) স্ত্রী যোগ দেবে। আহমাদ;
২৫.
কিছু ব্যবসায়ী গোটা বাজার নিয়ন্ত্রণ করবে। আহমাদ;
২৬.
মিথ্যা সাক্ষী বেড়ে যাবে। আহমাদ;
২৭.
সত্য সাক্ষ্য গোপনের প্রবণতা বাড়বে। আহমাদ;
২৮.
মূর্খতা বেড়ে যাবে। বোখারি;
২৯.
মানুষের অন্তরে হিংসা ও কৃপণতা বৃদ্ধি পাবে। আহমাদ;
৩০.
প্রতিবেশীর সঙ্গে দুর্ব্যবহার বৃদ্ধি পাবে। আহমাদ
৩১.
আত্মীয়তার সম্পর্ক ছিন্নের প্রবণতা বাড়বে। আহমাদ;
৩২.
অশ্লীলতার সয়লাব শুরু হবে। আহমাদ;
৩৩.
আমানতদারকে অবিশ্বাস আর খেয়ানতকারীদের বিশ্বাস করা হবে। হাকেম;
৩৪.
সমাজের ভালো লোকেরা দ্রুত বিলুপ্ত হবে ও নিচু লোকদের উত্থান হবে। হাকেম;
৩৫.
সম্পদ কোথা থেকে কীভাবে এলো তার বাছবিচার করবে না কেউ। বোখারি;
৩৬.
যুদ্ধলব্ধ সম্পদের সুষ্ঠু বণ্টন হবে না। তিরমিজি;
৩৭.
আমানতকে গনিমতের সম্পদ ভেবে ভোগ করা হবে। তিরমিজি;
৩৮.
জাকাতকে জরিমানা মনে করা হবে। তিরমিজি;
৩৯.
পার্থিব উদ্দেশ্যে এলম শিখবে। তিরমিজি;
৪০.
মানুষ স্ত্রীর কথা শুনবে, মায়ের কথা শুনবে না। তিরমিজি;
৪১.
পিতাকে দূরে রেখে বন্ধুদের কাছে টানা হবে। তিরমিজি;
৪২.
মসজিদে উচ্চৈঃস্বরে কথা বলা ও হৈহট্টগোলের প্রবণতা দেখা যাবে। তিরমিজি;
৪৩.
অপরাধী ও অসৎ লোকেরা বিভিন্ন সম্প্রদায়ের নেতা হবে। তিরমিজি;
৪৪.
সবচেয়ে নিকৃষ্ট ব্যক্তি সমাজের নেতৃত্বে থাকবে। তিরমিজি;
৪৫.
মানুষকে শ্রদ্ধা করা হবে তার অনিষ্ট ও ক্ষতির ভয়ে। তিরমিজি;
৪৬.
ব্যভিচারকে অবৈধ মনে করা হবে না। বোখারি;
৪৭.
পুরুষের জন্য রেশমকে হালাল মনে করা হবে। বোখারি;
৪৮.
মদকে বৈধ মনে করা হবে। বোখারি;
৪৯.
গানবাজনার অবৈধতার ধারণা বিলুপ্ত হবে। বোখারি;
৫০.
মৃত্যু কামনা বেড়ে যাবে। বোখারি;
৫১.
সকালের মোমিন বিকালে কাফের এবং বিকালের কাফের সকাল না হতেই ঈমানদার হয়ে যাবে। বোখারি;
৫২.
মসজিদগুলোতে অতিরিক্ত সাজসজ্জা করা হবে। নাসাঈ;
৫৩.
বাসাবাড়িতে সাজগোজে সীমালঙ্ঘন করা হবে। আদাবুল মুফরাদ;
৫৪.
বেশি বেশি বজ্রপাত হবে। আহমাদ;
৫৫.
লেখনী ও লেখকের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। আহমাদ;
৫৬.
গলাবাজিকে পেশা বানানো হবে। আহমাদ;
৫৭.
মানুষ কোরআনবিমুখ হয়ে যাবে এবং অন্য বইয়ের কদর ও বিস্তার হবে। তাবরানি;
৫৮.
সমাজে কারি ফকিহ ও আলেম কমে যাবে। হাকেম;
৫৯.
যারা নিজের যুক্তি দিয়ে কথা বলে এবং বেদাতে লিপ্ত, তাদের থেকে মানুষ এলম অর্জন করবে। ইবনুল মুবারক ফিয-যুহদ;
৬০.
হঠাৎ মৃত্যুর হার বেড়ে যাবে। তাবরানি
৬১.
নির্বোধরা নেতা হবে। বাজ্জার;
৬২.
সময় কাছাকাছি হয়ে যাবে। বোখারি;
৬৩.
স্বল্পবুদ্ধির লোকেরা জাতির মুখপাত্র বনে যাবে। মাজমাউজ যাওয়াইদ;
৬৪.
নির্বোধরাই বেশি সফল হবে। ত্বহাবি;
৬৫.
মসজিদকে রাস্তা হিসেবে ব্যবহার করা হবে। হাকেম;
৬৬.
মোহরানার আকার বৃদ্ধি পাবে। হাকেম;
৬৭.
ঘোড়ার দাম বেড়ে যাবে। হাকেম;
৬৮.
বাজারগুলো নিকটবর্তী ও সবকিছু হাতের নাগালে হয়ে যাবে। আহমাদ;
৬৯.
অন্যসব জাতি মুসলিমদের নিধনে ঐক্যবদ্ধ হবে। আবু দাউদ;
৭০.
মানুষ ইমামতি করতে চাইবে না। প্রাগুক্ত;
৭১.
ঈমানদারদের অনেক স্বপ্ন সত্য প্রমাণ হবে। বোখারি;
৭২.
মিথ্যার প্রচলন বাড়বে। মুসলিম;
৭৩.
মানুষ একে অন্যকে চিনতে চাইবে না। কেউ কারও সঙ্গে একান্ত স্বার্থ ছাড়া পরিচিত হতে চাইবে না। আহমাদ;
৭৪.
ভূমিকম্পের হার বেড়ে যাবে। আহমাদ;
৭৫.
মহিলাদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। বোখারি;
৭৬.
পুরুষ কমে যাবে। বোখারি;
৭৭.
অশ্লীল কাজ প্রচুর এবং প্রকাশ্যে হবে। মুসলিম;
৭৮.
কোরআন পাঠ করে মানুষের কাছে বিনিময় চাওয়া হবে। আহমাদ;
৭৯.
মোটা মানুষের সংখ্যা বেড়ে যাবে। বোখারি;
৮০.
সাক্ষ্য চাওয়া ছাড়াই আগ বেড়ে সাক্ষ্য দেয়ার লোক প্রকাশ পাবে। মুসলিম;
৮১.
মানত করে তা পুরা করবে না। মুসলিম;
৮২.
শক্তিশালীরা দুর্বলদের ভক্ষণ করবে। আহমাদ;
৮৩.
আল্লাহর বিধান বাদ দিয়ে মানব রচিত বিধান অনুসৃত হবে। আহমাদ;
৮৪.
পশ্চিমাদের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরবরা কমে যাবে। মুসলিম;
৮৫.
অভাবি লোক থাকবে না। জাকাত গ্রহণের লোক খুঁজে পাওয়া যাবে না। মুসলিম;
৮৬.
ভূগর্ভ তার ভেতরের খনিজসম্পদ বের করে দেবে। মুসলিম;
৮৭.
আকৃতি-বিকৃতির ঘটনা ঘটবে। তিরমিজি;
৮৮.
ভূমিধস দেখা দেবে। তিরমিজি;
৮৯.
আকাশ থেকে প্রস্তর বৃষ্টি হবে। তিরমিজি;
৯০.
কেয়ামতের আগে এমন বৃষ্টি হবে যা সব কাঁচা-পাকা বাড়িকে নিমজ্জিত করে দেবে। কিন্তু উটের পশম দ্বারা নির্মিত (বিশেষ ধরনের) তাঁবু রক্ষা পাবে। আহমাদ
৯১.
কেয়ামতের আগে বৃষ্টি হবে কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে ফসল হবে না। আহমাদ;
৯২.
একটি ভয়াবহ দাঙা গোটা আরবকে পরিষ্কার করে দেবে (মানুষ মরে সাফ হয়ে যাবে)। আহমাদ;
৯৩.
আল্লাহর হুকুমে বৃক্ষ কথা বলবে। বোখারি;
৯৪.
মুসলমানদের সাহায্যার্থে পাথরের জবান খুলে যাবে এবং পাথরের আড়ালে লুকানো ইহুদিদের কথা অলৌকিকভাবে বলে দেবে সে। বোখারি;
৯৫.
মুসলমানরা ইহুদিদের সঙ্গে চূড়ান্ত যুদ্ধ করবে। বোখারি;
৯৬.
ফোরাত নদীতে সোনার পাহাড় আবিষ্কার হবে। বোখারি;
৯৭.
কেউ গোনাহ করতে অপারগতা প্রকাশ করলে সমাজের মানুষ তাকে অচল, অসামাজিক, অযোগ্য ইত্যাদি তকমা দেবে। আহমাদ;
৯৮.
আরব উপদ্বীপে নদীনালা ও পানির নহর হবে। মুসলিম;
৯৯.
আহলাস নামক ফিতনা-দাঙ্গা দেখা দেবে। আবু দাউদ;
১০০.
সাররা নামক আরেকটি ফিতনা প্রকাশ হবে। আবু দাউদ;
১০১.
কেয়ামতের আগে দাহিমা নামক একটি ভয়াবহ দাঙ্গা সৃষ্টি হবে। আবু দাউদ;
১০২.
এমন একটা সময় আসবে যখন এক সিজদার মর্যাদা গোটা পৃথিবী ও তন্মধ্যকার সবকিছুর চেয়ে বেশি হবে। বোখারি;
১০৩.
মাসের শুরুতেই চাঁদ মোটা দেখা যাবে, যা সাধারণ নিয়মের ব্যতিক্রম। তাবরানি;
১০৪.
মানুষ সিরিয়ামুখী হবে। আহমাদ;
১০৫.
পশ্চিমাদের সঙ্গে মুসলমানদের মহাযুদ্ধ সংঘটিত হবে। তিরমিজি;
১০৬.
মুসলমানরা কুসতুনতুনিয়া (ইস্তান্বুল) জয় করবে। তিরমিজি;
১০৭.
মৃত ব্যক্তির পরিত্যক্ত সম্পদ বণ্টন করা হবে না। মুসলিম;
১০৮.
গনিমত-যুদ্ধলব্ধ সম্পদে মানুষ সন্তুষ্ট হবে না। মুসলিম;
১০৯.
পুরাতন যুদ্ধাস্ত্রের প্রচলন পুনরায় চালু হবে। তিরমিজি;
১১০.
কিছুকাল বিরান থাকার পর পুনরায় বায়তুল মোকাদ্দাস আবাদ হবে। আবু দাউদ;
১১১.
মদিনা তখন বিরান হবে এবং সেখানে পর্যটক ও অধিবাসী কমে যাবে। আবু দাউদ;
১১২.
কামারের হাপর যেমন লোহার জং দূর করে, মদিনা তেমনিভাবে তার ভেতরের সব মন্দকে বের করে দেবে। বোখারি;
১১৩.
পাহাড় নিজ স্থান থেকে সরে যাবে। (অলৌকিকভাবে অথবা মানুষ পাহাড় কেটে বসতি স্থাপন করবে)। তাবরানি;
১১৪.
একজন কাহতানি বংশীয় লোক আত্মপ্রকাশ করবে এবং সবাই তাকে অনুসরণ করবে। বোখারি;
১১৫.
জাহজাহ নামের এক লোক আবির্ভূত হবে। মুসলিম;
১১৬.
কেয়ামতের পূর্বে চতুষ্পদ হিংস্র জন্তু ও জড় পদার্থ কথা বলার মতো অলৌকিক ঘটনা ঘটবে। তিরমিজি;
১১৭.
ছড়ির মাথা থেকে কথা ভেসে আসবে। তিরমিজি;
১১৮.
জুতার ফিতা থেকেও কথা ভেসে আসবে। তিরমিজি;
১১৯.
এমন একটা সময় আসবে, মানুষের ঊরু অলৌকিকভাবে তার স্ত্রীর অনৈতিকতার কথা জানিয়ে দেবে। তিরমিজি;
১২০.
ধরাপৃষ্ঠ থেকে ইসলামচর্চা বিলুপ্ত হয়ে যাবে। ইবনে মাজাহ;
১২১.
আল্লাহ মানুষের অন্তর থেকে কোরআন উঠিয়ে নেবেন। ফলে কারও স্মৃতিতে আর কোরআন থাকবে না। ইবনে মাজাহ;
১২২.
কিছু লোক মক্কার হারামে যুদ্ধ করতে আসবে এবং ইমাম মাহদিকে গ্রেফতার করতে চাইবে, তখন তাদের পুরো বাহিনীসহ ভূমিধস হবে। মুসলিম;
১২৩.
বায়তুল্লাহর হজ পরিত্যাজ্য হয়ে যাবে। ইবনে হিব্বান;
১২৪.
আরবের কোনো কোনো গোত্র মূর্তিপূজা আরম্ভ করবে। বোখারি;
১২৫.
কোরাইশ বংশ বিলুপ্ত হয়ে যাবে। আহমাদ;
১২৬.
একজন নিগ্রো কর্তৃক কাবা ভেঙে ফেলার ঘটনা ঘটবে। বোখারি;
১২৭.
মোমিনদের জান কবজ করার জন্য একটি স্নিগ্ধ বাতাস বইবে। বোখারি;
১২৮.
মক্কায় সুউচ্চ দালান নির্মিত হবে। ইবনে আবি শায়বা;
১২৯.
উম্মতের উত্তরসূরিরা পূর্বসূরিদের অভিশাপ দেবে। ইবনে আবি শায়বা;
১৩০.
নিত্যনতুন দামি বাহন বের হবে। ইবনে হিব্বান;
১৩১.
ইমাম মাহদির আত্মপ্রকাশ ঘটবে।

Releted Post

Biday hajj er Vashon

• হে মানুষ! তোমরা আমার কথা শোনো.এর পর এই স্থানে তোমাদের সাথে আর একত্রিত হতে পারবো কিনা জানিনা! ••হে মানুষ আল্লাহ বলেন.হে মানবজাতি তোমাদেরকে আমি এক পুরুষ ও এক নারী থেকে সৃষ্টি করেছি,এবং তোমাদেরকে সমাজ ও গোত্রে ভাগ করে দিয়েছি. যেন তোমরা পরস্পরের পরিচয় জানতে পার,অতএব...

কেয়ামতের ১৩১টি ছোট আলামত

১. রাসুলুল্লাহ (সা.) এর আগমন। বোখারি; ২. তাঁর ওফাত। বোখারি; ৩. তাঁর আঙুলের ইশারায় চন্দ্র দ্বিখন্ডিত হওয়া। সূরা কামার ১-২; ৪. সাহাবাগণের বিদায়। মুসলিম; ৫. বায়তুল মোকাদ্দাস বিজয়। বোখারি; ৬. দুইটি প্রলয়ঙ্করী মহামারী (যা ১৬ ও ২৫ হিজরিতে হয়েছিল।) বোখারি; ৭. নানা ধরনের...

❤️—জান্নাতের বিবরন—❤️

❤️--জান্নাতের বিবরন--❤️ জান্নাতে কি হবে?__________.❤️আল্লাহ তাআলা বলেন,❤️.নিশ্চয় পরহেযগাররা বাস করবে উদ্যান ও প্রস্রবণসমূহে । (তাদেরকে বলা হবে,) তোমরা শান্তি ও নিরাপওার সাথে তাতে প্রবেশ কর। আমি তাদের অন্তরে যে ঈর্ষা থাকবে তা দূর করে দেব; তারা ভ্রাতৃভাবে পরস্পর...

মহানবী (সা.) এর ২১৮ টি মহামূল্যবান বাণী

❤️❤️❤️❤️ . হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আল্লাহর সর্বশেষ নবী। দুনিয়াতে যারা তাঁর দেখানো পথে চলবে, পরকালে তারাই জান্নাতে যাবে। তারাই জাহান্নাম থেকে মুক্তি পাবে। আমরা তাঁর উম্মত বা অনুসারী দল। আমরা তাঁর দেখানো পথে চলি। সঠিক পথ পাবার জন্যে তিনি আমাদের কাছে...

99 Name of Allah

Related Method

Biday hajj er Vashon

• হে মানুষ! তোমরা আমার কথা শোনো.এর পর এই স্থানে তোমাদের সাথে আর একত্রিত হতে পারবো কিনা জানিনা! ••হে মানুষ আল্লাহ বলেন.হে মানবজাতি তোমাদেরকে আমি এক পুরুষ ও এক নারী থেকে সৃষ্টি করেছি,এবং তোমাদেরকে সমাজ ও গোত্রে ভাগ করে দিয়েছি. যেন তোমরা পরস্পরের পরিচয় জানতে পার,অতএব...

কেয়ামতের ১৩১টি ছোট আলামত

১. রাসুলুল্লাহ (সা.) এর আগমন। বোখারি; ২. তাঁর ওফাত। বোখারি; ৩. তাঁর আঙুলের ইশারায় চন্দ্র দ্বিখন্ডিত হওয়া। সূরা কামার ১-২; ৪. সাহাবাগণের বিদায়। মুসলিম; ৫. বায়তুল মোকাদ্দাস বিজয়। বোখারি; ৬. দুইটি প্রলয়ঙ্করী মহামারী (যা ১৬ ও ২৫ হিজরিতে হয়েছিল।) বোখারি; ৭. নানা ধরনের...

❤️—জান্নাতের বিবরন—❤️

❤️--জান্নাতের বিবরন--❤️ জান্নাতে কি হবে?__________.❤️আল্লাহ তাআলা বলেন,❤️.নিশ্চয় পরহেযগাররা বাস করবে উদ্যান ও প্রস্রবণসমূহে । (তাদেরকে বলা হবে,) তোমরা শান্তি ও নিরাপওার সাথে তাতে প্রবেশ কর। আমি তাদের অন্তরে যে ঈর্ষা থাকবে তা দূর করে দেব; তারা ভ্রাতৃভাবে পরস্পর...

মহানবী (সা.) এর ২১৮ টি মহামূল্যবান বাণী

❤️❤️❤️❤️ . হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আল্লাহর সর্বশেষ নবী। দুনিয়াতে যারা তাঁর দেখানো পথে চলবে, পরকালে তারাই জান্নাতে যাবে। তারাই জাহান্নাম থেকে মুক্তি পাবে। আমরা তাঁর উম্মত বা অনুসারী দল। আমরা তাঁর দেখানো পথে চলি। সঠিক পথ পাবার জন্যে তিনি আমাদের কাছে...

web development full course

Class 1

1.Course Information  2.Topic

3. wordpress and local server

4. How to install WordPress

Class 4

1. How to activate premium theme) 2. How to activate premium theme 2) 3. How to add an image with email


						

Class 2

1. wordpress dashboard

2. wordpress page post category

Class 5

1.Wordpress Theme Customization (Avada)

2. WordPress Theme Customization (Avada) 2


						

Class 3

1. Free Theme Customization 1

2. Free Theme Customization 2

3. Olpo solpo golpo


						

More..........

Class 6, 7, 8, 9, 10, 11, 12, 13, 14, 16, 17, 18, 19, 20, 21, 22, 23, 24, 25, 26, 27, 28, 29, 30, 31, 32, 33, 34,

Related Articles

DIVI THEME FREE DOWNLOAD

if you want to download the premium version then i will give you a trick.download the fill n then e extract then download all in one migration plug-in n then import the fill n look you have a brand new divi then full premium version. then customize your website as...

TOP 10 Freelance Websites

❤️❤️❤️❤️❤️❤️ This website, having more than 1.5 million clients, it provides something  for every person who is searching for the best freelancing job. People can serch from any kind of job that includes, short-term and long term projects, works related to hourly or...

TOP-10-IMG-WEBSITE

❤️❤️❤️❤️❤️❤️❤️❤️These photos are carefully handpicked from a variety of free image sources to ensure that you’re getting only the best of the best. All of the photos that make the cut are under the Creative Commons Zero license, meaning that they are free for personal...

Adobe Premiere Pro CC 2018 Full version

Adobe Premiere Pro CC 2018 Full version

Step #2: Extract the file

Step #3: you need to disconnect your internet connection.

Step #4: Open install folder of Adobe premiere pro CC 2017, go on setup, then run the setup.exe file and wait for installation process this will take a while so

Step #5: installation completed! Click, OK

Step #6: Open start menu of your windows, search Adobe premiere pro CC 2017 then run it.

Step #7: click on the sign-in later option and go for installation.

Step #8: Now open install folder of Adobe premiere pro CC 2017 than visit patch.exe file

Step #9: run the painter setup.exe

Step #10: in here you need to select Adobe Premiere Pro CC 2017 then click on install button.

Step #11: Click on This PC / C-Drive /Program Files

Step #12: clicked on programs files, then Open Adobe file then clicks open Adobe Premiere Pro CC 2017 File.

Step #12: clicked on programs files, then Open Adobe file then clicks open Adobe Premiere Pro CC 2017 File.

Step #13: Select amtlib.dll file and wait for software to be activated.

Z

After completing all the steps, connect to your internet connection and reboot your system once, and enjoy. 😀

DIVI THEME FREE DOWNLOAD

if you want to download the premium version then i will give you a trick.download the fill n then e extract then download all in one migration plug-in n then import the fill n look you have a brand new divi then full premium version. then customize your website as...

Emergency blood bank number in Bangladesh

Emergency blood bank number in Bangladesh

Bangladesh Red Crescent Blood Bank  

Address: 7, 5 Aurangajeb Rd, Dhaka 1207
Hours: Open 24 hours
Phone: 02-9139940
———————

Bangladesh Blood Bank and Transfusion Center  

Address: 12,, 22 Babar Rd, Dhaka
Hours: Open 24 hours
Phone: 01718-176854
———————

Bangladesh Red Crescent Society  

Address: Sherpur
Hours: Open ⋅ Closes 5PM
———————